1. bplive24@gmail.com : admin2020 :

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৪৯ অপরাহ্ন

মাধবপুরে চুরির অপবাদে দুই স্কুলছাত্রকে রাতভর নির্যাতন

মাধবপুরে চুরির অপবাদে দুই স্কুলছাত্রকে রাতভর নির্যাতন

স্টাফ রিপোর্টার:: মাধবপুরে চুরির অপবাদে ২ স্কুল ছাত্রকে আটকে রেখে রাতভর অমানবিক নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরের দিন দুই স্কুল ছাত্রকে ‘চোর’ সম্মোধন করে থানায় দিলে সমাধানের নামে ঐদিনও সারারাত থানায় আটকে রাখা হয়। মুছলেখায় মুক্ত হলেও দুই স্কুল ছাত্রকে সামান্য ঔষধের টাকা দিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে প্রতিপক্ষ।
এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, কালিকাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী উপজেলার বাঘাসুরা ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের ইসলামাইল তালুকদারের বাসার ভাড়াটিয়া স¤্রাজ মিয়ার ছেলে বাবু (১০) ও এনু মিয়ার ছেলে মোজাম্মিল (১২) কে গত ৯ নভেম্বর রাতে একই এলাকার সৌদি প্রবাসী সোহেল মিয়ার বোন সুফিয়া ও ভাগ্নে রাহুল তাদের বাড়ি থেকে রড চুরি করার অপবাদ দিয়ে আটকে রেখে রাতভর মারপিট করে। ঘটনা শুনে সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ইউনিয়নরে সদস্য তাজুল ইসলাম মহালদার ও ডাঃ কামরুজ্জামান তালুকদার সজল আটককৃত দুই স্কুল ছাত্রকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেন। কিন্তু সৌদী প্রবাসী সোহেলের বোন সুফিয়া ও ভাগ্নে রাহুল থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে সমাধান করবে বলে তাদের থানায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলে। ১০ নভেম্বর সন্ধায় দুই স্কুল ছাত্রকে থানায় নিয়ে গেলে পুলিশ তাদের আটক করে রাখে। গতকাল সকালে সমাজ সেবা কর্মকতার মাধ্যমে তাদের পরিবারের কাছে বুজিয়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় তোলপাড় চলছে।
ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম মহালদার জানান, রাতে তাদের আটক করে রাখা হয়। সকালে আমি গিয়ে ঘটনাটি নিষ্পত্তি করে তাদের বাড়িতে দেয়া। পরে পুলিশ আসে তাদের থানায় নিয়ে যেতে। আমি সন্ধায় তাদের থানায় পাঠালে সারা রাত থানায় আটক করে রাখা হয়।
নির্যাতনকারী রাহুলের বড় ভাই রকির সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, শিশুদের মারপিট করা হয়নি। শিশুরা রড চুরি করেছিল তাই তাদের আটক করে থানায় দেওয়া হয়েছে। রেজিয়া নামে একজন মহিলা জানান, তারা ৮ জন চুরি করতে এসেছিল। আমরা ২ জনকে ধরি। তবে তাদের মারপিট করা হয়নি। তবে এলাকাবাসী বলেন, তারা চুরি করতে পারে না, এর আগে তাদের নামে কোন অভিযোগ আমরা শুনিনি।
এদিকে পরিবারের অভিযোগ, মিথ্যে চুরির অপবাদ দিয়ে দুই ছেলেকে অমানবিক নির্যাতন করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। এর সঠিক বিচার দাবী করেন নির্যাতিত দুই স্কুল ছাত্রের পরিবার।
আইনজীবি মুহিত মিয়া জানান, শিশুদের শাররীক ভাবে নির্যাতন করা দন্ডনীয় অপরাধ। তারা অপরাধ করলেও তাদের শাররীক ভাবে নির্যাতন করা যাবে না।
মাধবপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক মুঠেফোনে জানান, সৌদী প্রবাসী সেলিমের বাড়িতে তারা রড চুরি করতে গেলে ধরা পড়ে। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য জোড়পূর্বক এসে তাদের নিয়ে গেলে পুলিশকে খবর দেয়। তারা রড চুরির কথা স্বীকার করেছে। তবে তাদের বয়স শিশু হওয়ায় মুছলেখা রেখে সমাজসেবা অফিসারের মাধ্যমে পরিবারের কাছে দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2020 bijoyerprotiddhoni
Developed BY ThemesBazar.Com